ফ্যাশন

ফুল দিয়ে বৈশাখের সাজটি জেনে নিন

ফুল দিয়ে বৈশাখের সাজটি জেনে নিন

যারা খোলা চুলে থাকতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন, তারা কানের পাশের একদিকের চুল ক্লিপ দিয়ে আটকে ফুল ব্যবহার করতে পারেন। চুলের রং ও কাটের ধরন অনুযায়ী ফুল নির্বাচন করুন। ইচ্ছে হলে শাড়ির সঙ্গে বেছে নিতে পারেন পছন্দ অনুযায়ী খোঁপা। সাজানোর জন্য করুন ফুলের ব্যবহার। শাড়ি ও সালোয়ার-কামিজের সঙ্গে লম্বা বেণী ভালোই মানায়। বৈশাখ উপলক্ষে চুলে রঙও করতে পারেন। ফলে আপনার বৈশাখী সাজটিকে আরো বেশি আকর্ষণীয় করে তুলবে, বিশেষ করে কিশোরীদের জন্য। বৈশাখের এসময়ে তাই ফুল দিয়ে চুলের নানা সাজ আপনাকে করে তুলতে পারে আরো সাতন্ত্রত্য

আমাদের এনড্রয়েড মোবাইল এপস। বাছাই করা সেরা ১০১ পিঠার রেসিপি। ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুণ!

চুল

মোর কথা যদি মনে পড়ে সখি, যতনে বাঁধিও চুল, আলসে হেলিয়া খোপায় বাঁধিও মাঠের কলমী ফুল। জসীম উ“ীনের নায়িকা সাজুর মতো কলমী ফুলে খোঁপা না সাজালেও উৎসব-অনুষ্ঠানে ফুল দিয়ে চুল সাজানো বাঙালি নারীর সাজের ঐতিহ্য। আমাদের দেশের কবি সাহিত্যিকগণও খোঁপার ফুল নিয়ে লিখেছেন নানান গল্প, কবিতা। ফুলে ফুলে কেশ সাজাতে বিভিন্ন পরামর্শ দিয়েছেন হেয়ারোবিক্স ব্রাইডাল এর তানজিমা শারমিন মিউনী।

১. চন্দ্রমল্লিকা, জারবেরা বা জিনিয়া ফুল চুলের সাজে আনতে পারে নতুনত্ব। এই ফুলগুলোর বাহারি রং আর গোলাকার আকৃতি হওয়ায় সহজেই নজর কাড়ে। কানের পাশে গুঁজে দিতে বা খোঁপায় পরতে এই ফুলগুলো সুবিধাজনক।

২. একেবারেই অন্যকিছু করতে চাইলে ব্যবহার করতে পারেন রঙ্গন, জিপসি, গ্ল্যাডিওলাস, চাঁপা, বকুল বা কাঠগোলাপের মতো ফুল। পোশাকের রংয়ের সঙ্গে মিলিয়ে বাহারি ফুল ব্যবহার করলে দেখতে সুন্দর লাগবে।

f

৩. সাদা, গোলাপি, কমলা, হলুদ ইত্যাদি নানান বর্ণের ফুল আপনার এবং আপনার চুলের সৌন্দর্য বাড়িয়ে তুলবে বহুগুণ।

৪. অর্কিডের মতো আকর্ষনীয় ফুল একসময় দু®প্রাপ্য ছিল, আজ বাজারে তা সহজলভ্য। চুল সাজতে ব্যবহার করতে পারেন অর্কিড। নানান রংয়ের সমাহারের কারণে সহজেই খুঁজে পাওয়া যায় কাঙ্খিত রং। খোলাচুলে বা বেণিতে গুঁজে দেওয়া অর্কিড সাজে আনবে ভিন্নতা।

৫. অনেকের মনে করেন শাড়ি ছাড়া অন্য কোনো পোশাকের সঙ্গে চুলে ফুল পরলে ভালো দেখাবে না। শুধু শাড়ি কেন, সালোয়ার-কামিজ বা ফতুয়ার সঙ্গেও ফুল সমান মানানসই।

৬. সেক্ষেত্রে চুলে ফুল সাজানোর পদ্ধতিটা হতে হবে একটু ভিন্ন।

৭. যারা ফুল দিয়ে চুল সাজাতে ভালোবাসেন তারা মুখের আকৃতির সঙ্গে মিলিয়ে ফুল দিয়ে চুল সাজাতে পারেন।

৮. যাদের লম্বা মুখ, লম্বা চুল; তারা কানের পাশের চুলে কয়েকটি ছোট ফুল লাগিয়ে নিলে ভালো দেখাবে। তবে চুল বেশি লম্বা হলে খোঁপায় ফুল পরতে পারেন।

ছোট চুল বা গোল মুখে খোলা চুলের একপাশে একটি ফুল পরা যায়। বেলি ফুলের মালা খোঁপায় মানায় বেশি।

৯. সালোয়ার-কামিজ বা ফতুয়ার সঙ্গে ফুল পরতে চাইলে চুল বাঁধলেই বেশি ভালো লাগে। এক্ষেত্রে কানের পাশে ফুল গুঁজে দিতে পারেন।

শুধু তাজাফুলই নয়, চুলে পরার জন্য এখন পাওয়া যায় কাপড়, প্লাস্টিক ও ফাইবারের তৈরি নানান রকমের ফুল! এগুলো দেখতে একদম সত্যিকারের ফুলের মতোই মনে হয়।

'সবধরনের ভিডিও রেসিপি দেখতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুণ!'


বিঃ দ্রঃ মজার মজার রেসিপি ও টিপস, রেগুলার আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ বিডি রমণী



Click to comment

You must be logged in to post a comment Login

Leave a Reply

সর্বোচ্চ পঠিত

BD Romoni YouTube Channel
To Top