জানা-অজানা

অদ্ভুত রীতিতে ফের কুমিরের সাথে মহাধুমধামে বিয়ে হলো মেক্সিকোর মেয়রের! (ভিডিও)

অদ্ভুত রীতিতে ফের কুমিরের সাথে মহাধুমধামে বিয়ে হলো মেক্সিকোর মেয়রের! (ভিডিও)

গল্প-উপন্যাসে হলেও হতে পারে, কিন্তু, বাস্তবিকই কুমিরের সাথে মানুষের বিয়ে হচ্ছে বলে শুনেছেন কখনো? তা-ও নাম মাত্র নয়, রীতিমতো ঘটা করে। ব্যান্ডপার্টি বাজিয়ে, প্রথামাফিক আচার মেনে, সে এক এলাহীকাণ্ড!

আমাদের এনড্রয়েড মোবাইল এপস। বাছাই করা সেরা ১০১ পিঠার রেসিপি। ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুণ!

হবে না-ই বা কেন? যার বিয়ে, তিনি খুব হেলাফেলার লোক নন। মেয়র বলে কথা। তাই বিয়েতে কিছু স্বতন্ত্র তো থাকবেই। তা বলে, কুমিরকে বিয়ে! মেয়রের কি আর পাত্রী জুটল না? এ প্রশ্ন উঠতেই পারে। না উঠলে, সেটাই বরং অস্বাভাবিক।

মিডিয়ার নজর কাড়তেই কি কুমিরকে বিয়ে করে চমক দিতে চাইলেন দক্ষিণ মেক্সিকোর ‘ফিশিং টাউন’ বলে খ্যাত সান পেড্রো হুয়ামেলুলার মেয়র ভাসকুয়েজ রোজাস? কিন্তু আসলে তা নয়। এটা মেক্সিকোর মেছো শহরের রেওয়াজ।

এর আগে অদ্ভুত সব খেয়ালি মানুষ বিয়ে করেছেন নিজের পোষা প্রাণীকে। এমনকি রেলস্টেশনকে বিয়ের ঘটনাও ঘটছে। অদ্ভুত ভাবনার ব্যতিক্রমি সব মানুষ বিভিন্ন নিরীহ প্রানিকে বিয়ে করেছে এমন খবর প্রায়শই জানা গেলেও কুমিরকে বিয়ে করার খবর অন্য কোথাও নয় পৃথিবীর একটি জায়গাতেই হয়।

রাজকুমারী কুমিরের সাথে মেয়রের ধুমধাম করে বিয়ের কিছু খন্ডচিত্র
বছর বছর হিংস্র প্রানী হিসেবে পরিচিত কুমিরকে বিয়ের ঘটনা ঘটে আসছে সেই শহরে। গত বছর মেয়রের পাত্রী ছিলেন মারিয়া ইসাবেল নামের একটি কুমির,আর চলতি বছরে তার কুমির পাত্রীর নাম হলো ‘রাজকুমারী’ ।

অদ্ভুত মনে হলেও সেই কাজটিই করে আসছেন মেক্সিকোর সান পেদ্রো হুয়ামেলুলার মেয়র ভিক্তর আগুইলার। দক্ষিণাঞ্চলে জেলেদের শহর হিসেবে পরিচিত এই শহরটি ।

গতবছরের বিয়ের ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন এখানে। চলতি বছরে কুমিরের সাথে একইপাত্রের বিয়ের ভিডিওটি ফিচারের নিচে ।

সেই ১৭৮৯ সাল থেকেই নাকি চলে আসছে। কারণ, সেখানকার মানুষ মনে করেন, কুমিরের সাথে বিয়ে দিলে, মাছের উৎপাদন ভালো হবে। মতস্যজীবীদের সৌভাগ্য বয়ে আনবে। সে কারণেই এই বিয়ের চল।

তবে, চল হলেও, নিয়মরক্ষার বিয়ে নয়। যাবতীয় নিয়মনিষ্ঠা মেনেই বিয়ে সম্পন্ন হয়। বিয়ের আগে খ্রিস্টধর্মে দীক্ষিত করা হয় সেই কুমিরটিকে। পরানো হয় বিয়ের পোশাক। দেয়া হয় নতুন নামও। আগের বছর মেয়রের কুমির-বধূর যেমন নাম দেয়া হয়েছিলো মারিয়া ইসাবেল আর এবছর নাম দেয়া হলো ‘রাজকুমারী’  । বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে নববধূকে কোলে তুলে আদরও করেন মেয়র।

রয়টার্সে প্রকাশিত এক ভিডিওতে দেখা যায়, কুমিরের একটি বাচ্চার গায়ে বিয়ের পোশাক জড়ানো। এটিকে হাতে নিয়ে নাচছেন স্বয়ং মেয়র। শুধু নাচ নয়, তিনি চুমুও খাচ্ছেন কুমিরের ঠোঁটে! আর কুমির ও মেয়রকে ঘিরে নাচ-গান করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, অন্যদের অবাক লাগলেও মোটেও অবাক নয় স্থানীয়রা! কারন ১৭৮৯ সাল থেকে কুমিরকে বিয়ে করার এই ঐতিহ্য স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে চলে আসছে।

এ সম্পর্কে মেয়র ভিক্টর বলেন, ‘স্থানীয় বাসিন্দারা তাকে (কুমিরটিকে) রাজকুমারী বলে ডাকে। তাই আমি আমি রাজকুমারীর স্বামীর ভূমিকা পালন করছি।

বিবিসিতে প্রকাশিত চলতি বছর মেয়রের সাথে কুমির কন্যার বিয়ের একটি ভিডিও

'সবধরনের ভিডিও রেসিপি দেখতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুণ!'


বিঃ দ্রঃ মজার মজার রেসিপি ও টিপস, রেগুলার আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ বিডি রমণী



সর্বোচ্চ পঠিত

BD Romoni YouTube Channel
To Top