সৌন্দর্য পরামর্শ

প্রতিদিন ১০মিনিটের যত্নে গায়ের রং ফর্সা করুন

প্রতিদিন ১০মিনিটের যত্নে গায়ের রং ফর্সা করুন

সবাই ভাবেন আরেকটু যদি ফর্সা এবং সুন্দরী হতাম। কতনা ভাল হত ? এই গায়ের রং ফর্সা করার জন্য আমরা কত কিছুই না করে থাকি। বিউটি পার্লারের স্কিন পলিশ বা ফেয়ার পলিশ নামক ব্যয় বহুল বিউটি ট্রিটমেনট, কত কসমেটিক্সের ব্যবহার আরও কত কি !

কিন্তু এগুলো যে কত ক্ষতিকর তা কি আমরা জানি? না জেনেই অনেকেই এই কাজগুলো করছেন। তাহলে কি কোনভাবেই গায়ের রঙ ফর্সা করা যাবে না ? অবশ্যই যাবে। আর সেই উপায়টি হল ঘরোয়া পদ্ধতিতে রঙ ফর্সা করা। আসুন দেখে নিই দ্রুত গায়ের রং ফর্সা করার উপায়টি।

যা যা লাগবে 

১/২ টেবিল চামচ টকদই

১ টেবিলচামচ শসার পেষ্ট

১ টেবিলচামচ গুঁড়া দুধ

যা যা করবেন –

-প্রথমে মুখটি ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

-তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে নিন।

-এরপর টক দই, শসার পেষ্ট, গুঁড়া দুধ মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে ফেলুন।

-প্যাকটি ভাল করে মুখে লাগান। শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

-শুকিয়ে গেলে কসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।
এখন আয়নায় নিজের মুখটা দেখুন। দেখবেন বেশ উজ্জ্বল দেখাচ্ছে। নিয়মিত ব্যবহারে প্রাকৃতিকভাবে আপনার গায়ের রং আগের চেয়ে অনেক বেশি উজ্জ্বল হয়ে যাবে।

কীভাবে কাজ করে 

টক দই রোদে পোড়া দাগ দূর করে থাকে। এতে ভিটামিন সি, জিঙ্ক, ক্যালসিয়াম আছে যা ত্বকের রং ভিতর থেকে ফর্সা করে। এটি ত্বকে ময়েশ্চারাইজ ও এক্সফোলিয়েট করে থাকে। এছাড়া বলিরেখা দূর করতে টক দই এর জুড়ি নেই।

শসার পেষ্ট ত্বককে ঠান্ডা অনুভূতি দিয়ে থাকে। ত্বকের কালো দাগ, চোখের নিচের দাগও দূর করে থাকে শসা। শসা ত্বকের খুব ভাল টোনার হিসেবে কাজ করে ।

গুঁড়ো দুধে পানি আছে যা ত্বকের পানির পরিমাণ ঠিক রাখে। গুঁড়া দুধ ত্বকের দাগ দূর করে ত্বককে উজ্জ্বল ও মসৃণ করে থাকে।

'সবধরনের ভিডিও রেসিপি দেখতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুণ!'


বিঃ দ্রঃ মজার মজার রেসিপি ও টিপস, রেগুলার আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ বিডি রমণী



Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

সর্বোচ্চ পঠিত

BD Romoni YouTube Channel
To Top