দাদ ফাঙ্গাসজনিত একটি সংক্রমণপ্রবণ রোগ। পৃথিবীর প্রায় সব দেশে এর প্রাদুর্ভাব থাকলেও আমাদের দেশের মতো গরম ও ঘর্মপ্রবণ দেশে বেশি দেখা দেয়। সব বয়সের মানুষই এতে আক্রান্ত হতে পারে। শরীরের সব স্থানে দেখা দিলেও হাত, পা, বগল, কুচকি এবং কোমর আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বেশি। মাথা এবং কুচকিতে প্রায় একই ধরনের ফাঙ্গাসের মাধ্যমে আক্রান্ত হতে পারে। এর জন্য দায়ী ডারমাটোফাইট গোত্রের ফাঙ্গাস।

তবে চিন্তার কোন কারণ নেই, ঘরোয়া কিছু চিকিৎসার ফলে আমরা দাদের সমস্যা দূর করতে পারি।

তাহলে আসুন জেনে নিই কয়েকটা সহজ ও ঘরোয়া পদ্ধতি, যার মাধ্যমে দাদ ও একজিমা চুলকানি স্থায়ীভাবে দূর করা সম্ভব!!

গুগল প্লে-স্টোর থেকে আমাদের "পিঠার ১০১ রেসিপি" এন্ড্রয়েড এপসটি ডাউনলোড করুণ এখনি!